যেখানে পয়সা দিয়ে মেয়েদের মার খান ছেলেরা!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-০১-১২ ০০:৪০:০২

মানুষের কতরকম শখই না থাকে। সেই শখ মেটাতে যে কোন মূল্য দিতে প্রস্তুত থাকেন তাঁরা। এমনকী ‘প্রাণ’ও যদি যায়, তাতেও পরোয়া নেই। আমরা পর্বতারোহীদের কথা জানি। শুধুমাত্র নেশা পূরণ করতে গিয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন কতজন। তার হিসেব নেই। কিন্তু তাই বলে ইচ্ছে করে মার খাওয়া কারোর শখ হতে পারে? অবিশ্বাস্য মনে হলেও এমন ঘটনাই দেখা গেছে। আর বিশ্বের কোন প্রত্যন্ত জায়গায় নয়, খোদ লন্ডনের মতো শহরে ঘটে চলেছে এই কাণ্ড। অর্থের বিনিময়ে নিজের উপরে অত্যাচার করাতে এখানে পাড়ি দেন ছেলেরা।

উত্তর লন্ডনের ‘দ্য সাবমিশন রুম’ নামে একটি জিম জনপ্রিয় হয়ে গেছে গোটা বিশ্বে। স্যোশাল মিডিয়াতেও বহুজায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে সেই জিমের ছবি। জিমের মালিকানা ও দায়িত্বে রয়েছেন একজন বিখ্যাত মহিলা কুস্তিগীর। অবশ্য প্রধান দায়িত্বে তিনি থাকলেও তাঁকে সঙ্গ দেওয়ার জন্য আরও কয়েকজন কুস্তিগির রয়েছেন এখানে। 

সম্প্রতি এক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ওই মহিলা জানিয়েছেন, তাঁর ব্যবসা বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে আগের তুলনায় এবং ভালোই চলছে এখন। প্রশ্ন উঠতেই পারে, ব্যবসাটা কীসের? শুধুমাত্র জিম? না, তা নয়। জিম ছাড়াও আরও একটি কারণে জনপ্রিয় এই জায়গা। এখানে টাকা খরচ করে নিজেদের উপরে শারীরিক অত্যাচার করাতে আসেন পুরুষরা। আর কিছু সুস্বাস্থ্যের অধিকারি মহিলা কুস্তিগির সর্বক্ষণ তাঁদের গ্রাহককে মারার জন্য প্রস্তুত থাকেন। ওটাই প্রধান পরিষেবা জিমের। এর জন্য গ্রাহকদের ১৫০ পাউন্ড দিতে হয়।

শুনতে অবাক লাগলেও এটাই বাস্তব। জিমের মালিক জানিয়েছেন, ‘প্রতি সপ্তাহে প্রায় ১৫ থেকে ২০ জন আমাদের এখানে আসেন। আমাদের স্বাস্থ্যবতী মহিলা কুস্তিগিরদের শরীরের স্পর্শ পাওয়াই তাঁদের অন্যতম উদ্দেশ্য থাকে। কুস্তিটা শুধু মাত্র নামেই। তবুও যদি তাঁরা কুস্তির উপর জোর দিতে বলে, আমরা দিই। অনেকে আবার বেয়াড়া আবদারও করে অনেক সময়ে। এই ধরুন বলল, আজকে স্কিন ফিট জামা পড়ে লড়তে হবে তাঁদের সঙ্গে। আমরা যতটা সম্ভব আবদার রাখার চেষ্টা করি’।

আসলে যৌন আকাঙ্খা পূরণ করতেই এই জিমে আসেন পুরুষরা। জিমের কর্ণধার জানিয়েছেন, ১৯ থেকে শুরু করে ৭০ বছরের বৃদ্ধও রয়েছেন তাঁদের গ্রাহক তালিকায়। তাঁর বক্তব্যে, ‘কারো কারো জন্য এটা স্বাস্থ্য ভাল রাখার উপায়, কেউ কেউ আবার এর মধ্যে দিয়ে যৌন আসক্তিও মিটিয়ে নেন এখানে কিছুক্ষণ সময় কাটিয়ে। তবে আমি কুস্তি ভালবাসি। তাই আমার জন্য এটা নিজেকে আরও শক্তিশালী করে তোলার একটা রাস্তা। ’

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : ৯২৪ বার

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   ছাতকে প্রবাসীর বাড়ির ‘কেয়ারটেকার’ মহিলার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ
  •   কমলগঞ্জে ভারতীয় মদ ও গাঁজাসহ আটক ১
  •   শাবিতে কিশোরগঞ্জ এসোসিয়েশনের নবীনবরণ বৃহস্পতিবার
  •   শাবিতে কিশোরগঞ্জ এসোসিয়েশনের নবীনবরণ বৃহস্পতিবার
  •   এইচএসসি’র ফলাফলে গোয়াইনঘাট তোয়াকুল কলেজের সাফল্য
  •   প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে হাওর উন্নয়ন পরিষদের সভা
  •   বন্যা দুর্গত মানুষের মাঝে উসমান চেয়ারম্যানের ত্রান বিতরণ
  •   শ্রীমঙ্গলে স্বামী হত্যায় স্ত্রীর স্বীকারোক্তি
  •   গোয়াইনঘাটে আওয়ামীলীগ নেতা আলা উদ্দিনের দাফন সম্পন্ন
  •   শিক্ষামন্ত্রীকে মামলা করার পরামর্শ দিলেন প্রধানমন্ত্রী
  •   জৈন্তাপুরে উপজেলা পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্ট-১৭এর উদ্বোধন
  •   জৈন্তাপুরে ৩দিন ব্যাপি ফলদ বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন
  •   ফেইসবুকে ‘বিশ্বনাথকে’ নিয়ে শিক্ষকের কটুক্তি
  •   সিদ্দিকুরের ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর
  •   তিনতলা ৩টি ভবন উড়িয়ে দেয়া সম্ভব জৈন্তাপুরে উদ্ধার বিস্ফোরক দিয়ে
  • সাম্প্রতিক চিত্র-বিচিত্র খবর

  •   যে রহস্যময় গ্রাম থেকে কেউ জীবিত ফিরে আসে না
  •   আর্জেন্টিনার খামারে জন্ম নিল ‘শয়তান’! (ভিডিও)
  •   মৃতের সঙ্গে জীবনযাপনই তাদের রীতি!
  •   সুন্দরীদের সঙ্গে মেলামেশার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি!
  •   ইতিহাস সৃষ্টি করে এন্টার্কটিকায় বিয়ের আয়োজন!
  •   যে কৌশলে চোরের কাছ থেকেই সাইকেল ‘চুরি’ করলেন এই নারী!
  •   যে শহরে সেলফি স্টিক নিষিদ্ধ!
  •   যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার যোগ্যতা ফেল করা!
  •   নগ্ন ছবিতে আসক্ত স্বামী, শিক্ষা দিতে যা করলেন স্ত্রী!
  •   যে খেলার চূড়ান্ত ধাপ আত্মহত্যা!
  •   মন্দির গিয়ে বিয়ে, অতঃপর যুগলের কাণ্ডে বাকরুদ্ধ সবাই
  •   ৭১ বছরের বৃদ্ধাকে বিয়ে করল ১৬ বছরের কিশোর! (ভিডিও)
  •   পৃথিবীর সবচেয়ে সক্রিয় এবং আলসে দেশ!
  •   চাকরি খুইয়ে আগ্নেয়গিরিতে ঝাঁপ দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা
  •   দামি জিনিসপত্র নয়, পুরো বাড়িটাই তুলে নিয়ে গেল চোর!