ফেঞ্চুগঞ্জে একই রাতে দুই বাড়িতে ডাকাতের হানা, হামলায় আহত ২

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-০৯-১৪ ১১:১৮:০২

ফরিদ উদ্দিন, ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিনিধি :: ফেঞ্চুগঞ্জে আবারো ডাকাতের উৎপাত আক্রমণ শুরু হয়েছে। গত মাসে পর পর ৫/৬ টি দুর্ধর্ষ ডাকাতি হবার পর কিছুদিন বিরতি দিয়ে ডাকাতরা আবার হানা দিচ্ছে।

বৃহস্পতিবার  রাত অনুমান ১টার দিকে  ১২/১৫ জনের অস্ত্রধারী ডাকাত দল ফেঞ্চুগঞ্জ পুরান বাজারের তফাজ্জুল আহমেদের বাড়ির দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে অস্ত্রের মুখে তার পুত্র বধুকে জিম্মি করে চার ভরি স্বর্ণ ও নগদ প্রায় বিশ হাজার টাকা নিয়ে যায়।

পুত্রবধু বাপ্পি বেগম বলেন, বাড়িতে আর কোনু লোকজন না থাকায় আমরা প্রান ভয়ে চুপ হয়ে যাই।

এর পরে বেপরোয়া ডাকাতরা হানা দেয় পার্শ্ববর্তী ফেঞ্চুগঞ্জের পুরান বাজারে জামাল মিয়ার বাড়ি। ডাকাত দল বড়ির দরজা ভেঙ্গেই বিছানায় থাকা জামাল মিয়ার ভাই জিল্লুর রহমান (৩৫) কে শুয়া অবস্থায় রাম দা দিয়ে এলোপাথাড়ি  কোপায়। এতে জিল্লুর রহমানের মাথা, নাক মুখ মারাত্মক ভাবে জখম হয়। তাকে বাচাতে তার স্ত্রী এগিয়ে এলে উনাকেও কিল ঘুসি দিয়ে আহত করে। জামাল মিয়া মোবাইলের মাধ্যমে আশপাশে জানালে লোকজন ছুটে আসতে থাকলে ডাকাতরা দুই রাউন্ড ফাকা গুলি করে মনিপুর চা বাগানের দিকে পালিয়ে যায়।

আহতের ভাই জামাল মিয়া জানান, খবর পেয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ থানা পুলিশ এসেছেন, দেখে গেছেন।তিনি জানান, আহত জিল্লুর রহমান কে চিকিৎসার জন্য শহরে নেওয়া হয়েছে। উনার রোম তালা বদ্ধ। ঐ রোমের কিছু ডাকাতি হলে এ মুহুর্তে বলা যাচ্ছে না।

সরেজমিনে দেখা যায় জিল্লুর রহমান কে কোপানোর কক্ষের দেয়াল মেঝেতে রক্ত লেগে আছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, এ পর্যন্ত যত ডাকাতি হয়েছে ডাকাতরা হয় চা বাগান দিয়ে সে বা চা বাগান দিয়ে পালিয়ে যায় ঐ পয়েন্টে ব্যবস্থা নেওয়া হয় না কেন বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন পুলিশের উপর।

রাতে ঐ রোডে মোবাইল ডিউটিতে থাকা এস,আই অমৃত কুমার ডাকাত হামলার কথা স্বীকার করে বলেন, আমাদের খবরা খবর না দিলে কি করব। তবে আমরা ডাকাতদলকে ধরতে অভিযান চালিয়ে যাচ্ছি।

এদিকে একই রাতে রাতে দুইটি ডাকাতি ঘটনায় এলাকায় উদ্বেগ বিরাজ করছে। এলাকার মানুষ ডাকাতের হাত থেকে রক্ষা পেতে প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭/এফইউ/এমকে-এম

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : ৬২৫ বার

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   শাহী ঈদগাহে ‘শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে’ ফের মেলা!
  •   শূন্যতা পূরণ হয়নি হারিছ-ইলিয়াসের
  •   ডিসেম্বর থেকে সিলেটি বধু মাহির ‌‘অবতার’
  •   বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতের সাথে প্যারিস-বাংলা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়
  •   তাহিরপুরে হাওলি জমিদার বাড়ি সংরক্ষণে মাঠ জরিপ
  •   শায়েস্তাগঞ্জে তিন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা
  •   গোলাপগঞ্জ থেকে অটোরিক্সাসহ চালক নিখোঁজ
  •   বাদামবাগিচা থেকে সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার
  •   কলকাতায় জঙ্গি সন্দেহে ছাতকের যুবক গ্রেফতার
  •   হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মাণে প্রান্তিক কৃষকদের সম্পৃক্ত করা হবে: সিলেটে পানি সম্পদমন্ত্রী
  •   মোগলাবাজারে মালামালসহ দুই ‘চোর’ আটক
  •   মৌলভীবাজার জেলা তথ্য কর্মকর্তার প্রেস ব্রিফিং
  •   ছাতকের বন্ধ থাকা ছনবাড়ী স্বাস্থ্য কেন্দ্র পরিদর্শনে পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা
  •   কবি শুভেন্দু ইমামের জন্মদিন ঘিরে আনন্দ আয়োজন
  •   পরিবহণ শ্রমিকরা দেশের একটি বড় সম্পদ: তোফায়েল আহমদ
  • সাম্প্রতিক সিলেট খবর

  •   শাহী ঈদগাহে ‘শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে’ ফের মেলা!
  •   শূন্যতা পূরণ হয়নি হারিছ-ইলিয়াসের
  •   ডিসেম্বর থেকে সিলেটি বধু মাহির ‌‘অবতার’
  •   তাহিরপুরে হাওলি জমিদার বাড়ি সংরক্ষণে মাঠ জরিপ
  •   শায়েস্তাগঞ্জে তিন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা
  •   গোলাপগঞ্জ থেকে অটোরিক্সাসহ চালক নিখোঁজ
  •   বাদামবাগিচা থেকে সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার
  •   কলকাতায় জঙ্গি সন্দেহে ছাতকের যুবক গ্রেফতার
  •   হাওর রক্ষা বাঁধ নির্মাণে প্রান্তিক কৃষকদের সম্পৃক্ত করা হবে: সিলেটে পানি সম্পদমন্ত্রী
  •   মোগলাবাজারে মালামালসহ দুই ‘চোর’ আটক
  •   মৌলভীবাজার জেলা তথ্য কর্মকর্তার প্রেস ব্রিফিং
  •   ছাতকের বন্ধ থাকা ছনবাড়ী স্বাস্থ্য কেন্দ্র পরিদর্শনে পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা
  •   কবি শুভেন্দু ইমামের জন্মদিন ঘিরে আনন্দ আয়োজন
  •   পরিবহণ শ্রমিকরা দেশের একটি বড় সম্পদ: তোফায়েল আহমদ
  •   লিডিং ইউনিভার্সিটিতে আইটি ল্যাব সলিউশন্স'র ওয়ার্কশপ সম্পন্ন