প্রধান বিচারপতির ছুটির বিষয়টি পরিষ্কার: কাদের

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-১০-০৩ ২১:৪৬:৪৩

ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, 'প্রধান বিচারপতির ছুটির বিষয়টিতে আইনমন্ত্রী সরকারের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন। এটাই সরকারের বক্তব্য। এটা নিয়ে বারবার কথা বলার প্রয়োজন নেই।'

মঙ্গলবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক যৌথসভা শেষে ব্রিফিংয়ে ওবায়দুল কাদের একথা বলেন। আগামী ৭ অক্টোবর জাতিসংঘের ৭২তম অধিবেশনে যোগদান শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেশে ফেরা উপলক্ষে গণসংবর্ধনা সফল করতে আওয়ামী লীগের সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোর সঙ্গে এই যৌথসভার আয়োজন করা হয়।

প্রধান বিচারপতির ছুটি নেওয়া প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, 'যিনি অসুস্থ, তিনি ছুটি নিবেন সেটাই স্বাভাবিক। কারো অসুস্থতায় কী ব্যবস্থা নিতে হবে, সেই বিষয়টিও সংবিধানের ৯৭ ধারা পথরেখা করে দিয়েছে। কাজেই সেভাবেই হবে। এটা আন্দোলনের বিষয় নয়, আইনগত বিষয়।'

এ বিষয়ে বিএনপির অভিযোগ সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'যে দল থেকে এ অভিযোগ করা হচ্ছে সেই দলের নেত্রী কী কারণে এতদিন বিদেশে আছেন? অসুস্থতার কথাই তো বলেছিলেন। সময় ছিল দুই মাস। এখন দুই মাস পেরিয়ে তিন মাস, তিন মাসের পরও আরও কয়েকদিন। তিনি এখনও এলেন না।'

ওবায়দুল কাদের বলেন, 'রোহিঙ্গা সংকটে আজ সারা দুনিয়ায় আলোড়ন। সেই আলোড়ন বিএনপির চেয়ারপারসনের মধ্যে পেলাম না। সংকটের শুরু থেকে আজ পর্যন্ত আওয়ামী লীগ ও তিনি নিজেই (ওবায়দুল কাদের) শেখ হাসিনার নির্দেশে রোহিঙ্গাদের মাঝে পড়ে আছেন। লোক দেখানো ফটোসেশনের জন্য তাদের দলের কেউ কেউ গেলেন।'

তিনি বলেন, 'সেখানে ২০ দিন ছিলাম। আর মির্জা ফখরুল সাহেব গেলেন মাত্র একদিন। আর একদিন গিয়েও কেবল অভিযোগ। সারা দুনিয়া বলছে, রোহিঙ্গা ইস্যুতে সরকার সফল, আর বিএনপি বলছে ব্যর্থ। দেশের জনগণ বলছে, এ সংকটে সময়োচিত নেতৃত্ব দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা। কিন্তু এ প্রশংসা বিএনপি করতে পারেনি।'

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, 'নেতিবাচক রাজনীতি করতে করতে বিএনপি যেভাবে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ছে তাতে মনে হয়, কখন যে লাইফ সাপোর্টে নিয়ে যেতে হয়; সেই অবস্থায় আসতে এ দলের বেশি বাকি নেই।'

এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, 'লন্ডনে বসে খালেদা জিয়া ও ছেলে তারেক রহমান কী ষড়যন্ত্রের জাল বুনছেন, তা জাতি জানতে চায়। দুইজনে মিলে শেখ হাসিনাকে হত্যা করার জন্য ষড়যন্ত্রের জাল বুনছেন, শেখ হাসিনার সরকারকে হঠানোর জন্য। এর তদন্ত হওয়া প্রয়োজন। তদন্তে সাহায্য করার জন্য স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড ও এমআই সিক্সসহ ব্রিটিশ গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে অনুরোধ করছি।'

সেতুমন্ত্রী বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডন থেকে সিলেট বিমানবন্দর হয়ে আগামী ৭ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাদেশ বিমানে ঢাকায় পৌঁছাবেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় যে সাহসের পরিচয় দিয়েছেন, তাই তিনি দুনিয়ায় বিপন্ন মানবতার বাতিঘরে পরিণত হয়েছেন। তাই জনগণের যে আকুতি নেত্রী দেশে ফিরে এলে দেশবাসীর পক্ষে বিশিষ্ট নাগরিকরা তাকে সংবর্ধনা দিতে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাবেন। তার চলার পথে বিমানবন্দর থেকে গণভবন পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে যানজটে বিঘ্ন না ঘটিয়ে সাধারণ মানুষ তাকে সংবর্ধনা জানাবে। নেত্রীর (শেখ হাসিনা) জন্য গোটা জাতি গর্ববোধ করছে। আমরা যদি তাকে স্বাগত না জানাই, সেটা আমাদের বিবেককে কষ্ট দিবে, আমাদের অনুভূতিতে আঘাত হবে। আজ ঢাকাবাসী সংবর্ধনা দিতে রাস্তায় দাঁড়াবেন—এটাই আমরা আশা করি।'

কাদের বলেন, 'জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া পাঁচ দফা প্রস্তাব সারা দুনিয়ায় সমাদৃত ও প্রশংসিত হয়েছে। সেই কারণে বিশ্ব জনমতের চাপে মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চি'র একজন মন্ত্রী বাংলাদেশে এসেছেন। বৈশ্বিক চাপের মুখে মিয়ানমারের মন্ত্রীর নরম সুর। ওই দেশের রোহিঙ্গা ইস্যুতে তাদের অবস্থানগত পরিবর্তন শেখ হাসিনার নেতৃত্বের পরিচয়। তিনি (শেখ হাসিনা) জাতিসংঘসহ সারা বিশ্বের নেতাদের বুঝাতে পেরেছেন, এটা গণহত্যা, জাতিগত নিধন। জাতিসংঘে নিরাপত্তা পরিষদে দুটি দেশ ছাড়া সবদেশই এটাতে সমর্থন করেছে। এ দুটি দেশ সরাসরি সমর্থন না করলেও একটা সহানুভূতির সুর দেখা গেছে। তাদের এ অবস্থান শেষ কথা বলে মনে করছি না।'

এর আগে ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে যৌথসভায় দল ও সহেযাগী-ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ড. আবদুর রাজ্জাক, লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান, মাহবুব-উল আলম হানিফ, ডা. দীপু মনি, অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, ড. হাছান মাহমুদ, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, একেএম এনামুল হক শামীম, ব্যারিস্টার মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, ড. শাম্মী আহমেদ, দেলোয়ার হোসেন, আবদুস সবুর, বিপ্লব বড়ুয়া, আমিনুল ইসলাম আমিন, পঙ্কজ দেবনাথ, নাজমা আক্তার, অপু উকিল, শাহে আলম মুরাদ, সাদেক খান, সাইফুর রহমান সোহাগ, এসএম জাকির হোসাইন প্রমুখ।-সমকাল

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : ২১৬ বার

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   সুনামগঞ্জ জেলা আ.লীগের কমিটি পূর্নাঙ্গের আভাস
  •   আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সৈয়দ অাশরাফের স্ত্রী আর নেই
  •   গোয়াইনঘাটে স্যানিটেশন মাস উদযাপন উপলক্ষ্যে র‌্যালী
  •   চিত্রা হরিণ যুক্ত হচ্ছে লাউয়াছড়ায়
  •   মাধবপুরে হাসপাতাল থেকে মাদক উদ্ধার, আটক ৩
  •   মিয়ানমারকে ফেরত নিতে হবে রোহিঙ্গাদের: সুষমা স্বরাজ
  •   সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন দেখতে চায় ভারত
  •   নর্থ ইস্ট ইউনিভার্সিটি ও বিক্রয় ডটকমের চুক্তি স্বাক্ষরিত
  •   ইন্টারনেট স্পিড কম থাকবে আগামী তিনদিন
  •   উত্তরায় ছাত্রলীগের ধাওয়ায় ক্যাম্পাস ত্যাগ করল ছাত্রদল
  •   কার সঙ্গে সিনেমা হলে গেল শাহরুখ কন্যা সুহানা?
  •   ফের বিমানে স্যামসাং মোবাইলের বিস্ফোরণ, বড়সড় দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে গেল জেট এয়ারওয়েজ
  •   যে পাঁচ যুক্তিতে মৃত্যুদণ্ড থেকে বাঁচলেন ঐশী
  •   শেবাগের কাছে 'ভিক্ষা' চেয়েছিলেন শোয়েব, ফাঁস হলো সেই রহস্য!
  •   মায়ের জিন-ই ঠিক করে সন্তান মেধাবী হবে কি না!
  • সাম্প্রতিক রাজনীতি খবর

  •   উত্তরায় ছাত্রলীগের ধাওয়ায় ক্যাম্পাস ত্যাগ করল ছাত্রদল
  •   আওয়ামী লীগে ৯৩ সহসম্পাদক আসছেন নভেম্বরে
  •   ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি: ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার
  •   আ.লীগ চায় সেনাবাহিনী ঠুঁটো জগন্নাথ হয়ে বসে থাকুক: রিজভী
  •   খালেদা জিয়া বললেন, ‘আমি কার কাছে যাবো?’
  •   দেশে ফিরলেন খালেদা
  •   খালেদা জিয়া দেশে ফিরছেন, পাচ্ছেন ‘গণতন্ত্রের যোদ্ধা’ উপাধি
  •   বেগম খালেদা জিয়া বুধবারে বাংলাদেশে ফিরছেনঃ যুক্তরাজ্য বিএনপি
  •   বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে মেনে নিয়েছে বিএনপি: হাছান মাহমুদ
  •   সিইসির পদত্যাগ চান কাদের সিদ্দিকী
  •   মনোনয়ন পাবেন না অর্ধেক এমপি
  •   খালেদার গ্রেফতারি পরোয়ানা যাচ্ছে গুলশান থানায়
  •   নির্বাচনকালীন সময়ে সহায়ক সরকারের প্রস্তাব দিল বিএনপি
  •   বিএনপির নেতৃত্বে বহুদলীয় গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হয়েছে: সিইসি
  •   নির্বাচন কমিশনকে যা বলেছেন বিএনপির ফখরুল