মাজার লুট: র‌্যাব সদস্যসহ সাতজনের বিচার শুরু

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-০৯-১৩ ১২:২৫:২৬

চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার তালসরা দরবার শরিফের টাকা লুটের মামলায় চার র‌্যাব সদস্যসহ সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। মঙ্গলবার চট্টগ্রামের পঞ্চম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ নুরে আলম ভুঁইয়ার আদালত অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর নির্দেশ দেন। আগামী ২৩ অক্টোবর সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য দিন ধার্য করেছেন আদালত।

আসামিরা হলেন- র‌্যাব-৭ এর তৎকালীন অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল (চাকরিচ্যুত) জুলফিকার আলী মজুমদার, ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট (বাধ্যতামূলক ছুটিতে) শেখ মাহমুদুল হাসান, র‌্যাব-৭ এর সাবেক ডিএডি আবুল বাশার, এসআই তরুণ কুমার বসু, র‌্যাবের তিন সোর্স দিদারুল আলম ওরফে দিদার, আনোয়ার মিয়া ও মানব বড়ুয়া। অভিযোগ গঠনের সময় জামিনে থাকা সাত আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি আ ক ম সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, মাজারের অর্থ লুটের ঘটনায় করা করা মামলায় অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। আগামী ২৩ অক্টোবর সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য দিন নির্ধারণ করেছেন আদালত।

তিনি বলেন, মামলায় এলিট ফোর্স র‌্যাবের সদস্যরা জড়িত। এটি একটি চাঞ্চল্যকর মামলা। আসামিরা দরবার শরিফে ঢুকে লোকজনকে আটকে রেখে দরবার ও মসজিদ সংস্কারের জন্য মানুষের দেয়া দুই কোটি টাকা লুণ্ঠন করে নেয়। এটি জাতি আশা করেনি। সাবেক র‌্যাব কর্মকর্তা জুলফিকার আলী মজুমদারের গাড়িচালক ও দেহরক্ষী ডাকাতির বর্ণনা দিয়ে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। এছাড়া অন্য তিনজন সাক্ষীও জবানবন্দি দিয়েছেন বলে জানান তিনি।

বাদীপক্ষের আইনজীবী সাহাবুদ্দিন আহমেদ বলেন, আসামিদের মামলা থেকে অব্যাহতির আবেদন নামঞ্জুর অভিযোগ গঠন করেছে আদালত। দণ্ডবিধির ৩৯৫ ও ৩৯৭ ধারায় (দস্যুতা ও ডাকাতি) অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।

মামলার নথি সূত্রে জানা গেছে, তালসরা দরবারে ২০১১ সালের ৪ নভেম্বর রাতে র‌্যাব সদস্যরা গিয়ে তল্লাশির নামে দুই কোটি সাত হাজার টাকা লুট করেন নেন। এ ঘটনায় ২০১২ সালের ১৩ মার্চ আনোয়ারা থানায় র‌্যাব সদস্যসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন তালসরা দরবারের পীরের গাড়িচালক মো. ইদ্রিস। এ মামলায় ২০১২ সালের ২৬ জুলাই জুলফিকারসহ সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন আনোয়ারা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আবদুস সামাদ।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : ১৫৩ বার

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   গোলাপগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’পক্ষে দফায় দফায় সংঘর্ষ
  •   এলইউতে সিএসই বিভাগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি সম্পন্ন
  •   শ্রীমঙ্গলে তারেক রহমানের জন্মাদিন পালন
  •   তারেক রহমানের জন্মদিনে ইলেকট্রিক সাপ্লাইয়ে ছাত্রদলের আয়োজন
  •   নায়ক সালমান হত্যা নিয়ে যা বললো পিবিআই
  •   জকিগঞ্জ শত্রু মুক্ত দিবস: প্রথম মুক্তাঞ্চল হিসেবে রাষ্টীয় স্বীকৃতির দাবী
  •   মানবতাবিরোধী অপরাধ: মৌলভীবাজারে পাঁচজনের রায় যেকোনো দিন
  •   ষাঁড়ের গুঁতোয় আর্জেন্টাইন পর্যটকের মৃত্যু
  •   চালক ছাড়াই চলবে গাড়ি
  •   ঢাকা ডায়নামাইটসকে হারিয়ে শীর্ষে কুমিল্লা
  •   ‘সিলেট রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি: শেষ হাসি কার?’
  •   ২০১৮ সালে ভয়াবহ ভূমিকম্পের মুখোমুখি হতে চলেছে পৃথিবী!
  •   'আওয়ামী লীগ ফাঁকা মাঠে গোল দিয়ে সরকার গঠন করতে চায় না'
  •   হাসপাতাল-ক্লিনিকে টাকার জন্য লাশ জিম্মি রাখা যাবে না: হাইকোর্ট
  •   এক মোটরসাইকেলে ৫৮ জনের ১২শ' মিটার সফর করে বিশ্ব রেকর্ড!
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   হাসপাতাল-ক্লিনিকে টাকার জন্য লাশ জিম্মি রাখা যাবে না: হাইকোর্ট
  •   দেশের দ্বাদশ সিটি করপোরেশন হচ্ছে ময়মনসিংহ
  •   অ্যালায়েন্স সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার
  •   স্কুলে শাস্তির মাধ্যমে শিশুকে শৃঙ্খলার মধ্যে আনা যায়
  •   রাবিতে ছাত্রী অপহরণের ঘটনায় সাবেক স্বামীসহ দু'জন রিমান্ডে
  •   ছিনতাইকারীর হামলায় আহত ডিবির পরিদর্শক
  •   তালাকপ্রাপ্ত নারীকে অপহরণের পর ধর্ষণ
  •   রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবির পরিদর্শনে কক্সবাজার গেলেন বিদেশি পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা
  •   রোহিঙ্গা ইস্যু: চীনও চায় শান্তিপূর্ণ সমাধান
  •   পেট কাটার পর ডাক্তার বলেন রোগীর সমস্যা নেই!
  •   অনৈতিক কাজে জড়াচ্ছে রোহিঙ্গা তরুণীরা
  •   '৭ মার্চের ভাষণে অন্ধকার খুঁড়ে জেগে উঠেছিল আলোর ফোয়ারা'
  •   আজ যেন আরেকটি ৭ মার্চ!
  •   শাহজালালে যাত্রীর শরীর থেকে তিনটি স্বর্ণবার উদ্ধার
  •   রংপুরে “আস্থা” সৃষ্টি করতে চায় ইসি