ক্লাস বন্ধ রেখে বিদ্যালয়ে গ্রন্থাগারিকের গায়ে হলুদ!

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-০৮-১২ ০০:৩৭:৩১

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে ক্লাস বন্ধ করে বিদ্যালয়ের মাঠে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান সারলেন সহকারী গ্রন্থাগারিক। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার মহিশালবাড়ী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে স্কুলের প্রধান শিক্ষকের এমন আয়োজনে ক্ষোভ জানিয়েছেন অভিভাবকরা। বৃহস্পতিবার বিকেলের দিকে বিদ্যালয়টির সহকারী শিক্ষক মিজানুর রহমান তার ফেসবুকে গায়ে হলুদের তিনটি ছবি শেয়ার করেন। ছবিগুলো জুড়ে দেন প্রধান শিক্ষক হায়দার আলীর ফেসবুকেও।

ছবির বর্ণনায় ওই শিক্ষক লেখেন, ‘মহিশালবাড়ী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী গ্রন্থাগারিক মো. ইব্রাহিমের আগামীকাল (শুক্রবার) শুভ বিবাহ আল্লাহর অশেষ রহমতে সুসম্পন্ন হইবে। সে লক্ষে আজ (বৃহস্পতিবার) অত্র বিদ্যালয়ে গায়ে হলুদের আয়োজন করা হয়। ’ প্রকাশ হওয়ার পর পরই ভাইরাল হয়ে যায় এসব ছবি। পড়তে থাকে বিরূপ মন্তব্য।

প্রকাশিত ছবিগুলোতে দেখা গেছে, বিদ্যালয়ের আঙিনায় ঘটা করে গায়ে হলুদের আয়োজন করা হয়েছে। এর একটি ছবিতে সহকারী গ্রন্থাগারিক মো. ইব্রাহিমের মুখে গামছা ধরে আছেন সহকারী শিক্ষক আশরাফুল হক। পাশে বসে আছেন প্রধান শিক্ষক হায়দার আলী। আশপাশে ঘিরে দাঁড়িয়ে শিক্ষার্থীরা। সেখানে অন্য শিক্ষকরাও ছিলেন। সবার মুখে হাসি। ওই অনুষ্ঠানে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা মো. ইব্রাহিমকে একে একে মিষ্টিমুখ করান। বিদ্যালয় ভবনের ছাদে দাঁড়িয়ে শিক্ষার্থীদের এ আয়োজন উপভোগ করতে দেখা গেছে। শুক্রবার উপজেলার মহিশালবাড়ি এলাকার বাসেদ আলীর মেয়ে নাজনিনের সঙ্গে ঘটা করে বিয়ে হয়েছে সহকারী গ্রন্থাগারিক ইব্রাহিমের। ইব্রাহিমের বাড়ি বিদ্যালয়ের পাশেই।

বিদ্যালয়ে এমন অনুষ্ঠান আয়োজন বিষয়ে জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক হায়দার আলী বলেন, দীর্ঘদিন ধরেই সহকারী গ্রন্থাগারিকের বিয়ে হচ্ছিলো না। তার বিয়ের এমন খবরে শিক্ষার্থীরা খুশি হয়ে এ আয়োজন করেছে। বিদ্যালয়ের টিফিন চলাকালীন পাঁচ মিনিটের মধ্যেই ওই অনুষ্ঠান শেষ করা হয়েছে। সমালোচনার বিষয়টি স্বীকার করেন প্রধান শিক্ষক।

তবে বিদ্যালয়ে এমন অনুষ্ঠান আয়োজনের সুযোগ নেই বলে দাবি করেছেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার সামশুল কবির। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রাতেই প্রধান শিক্ষকের ফেসবুকে সহকারী গ্রন্থাগারিকের গায়ে হলুদের ছবি দেখেছেন। পরে শুক্রবার সকালে এনিয়ে প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে তার কথা হয়েছে। এ আয়োজনের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন প্রধান শিক্ষক। তবে ফেসবুকে প্রকাশিত ছবি তারা প্রমাণ হিসেবে নেবেন না। কেবল অভিভাবকদের লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেবেন।

দাফতরিক কাজে ঢাকায় অবস্থান করায় বিষয়টি জানেন না বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ নেওয়াজ।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : ৯৯ বার

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   মুক্ত আকাশে মুক্তির নিশান ওড়ার দিন
  •   সিলেটে কঠোর নিরাপত্তায় শ্রদ্ধাঞ্জলি
  •   সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে চলছে শ্রদ্ধা নিবেদন
  •   কুশিঘাট মনিপুরীপাড়া এলাকাবাসীর সাথে আসাদ উদ্দিনের মতবিনিময়
  •   ভারত ও পাকিস্তানে গুগলে কী খোঁজা হয়
  •   বিজয় দিবসে ক্রিয়েটিভ সিলেট'র উদ্যোগে শীতার্তদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ
  •   মাঝপথ থেকে বাড়ি ফিরে ‘আপত্তিকর অবস্থায়’ পেলেন স্ত্রীকে
  •   এক বাংলাদেশি ফটোসাংবাদিকের রোমাঞ্চকর অভিযাত্রা
  •   মহানবী (সা.) যেসব খাবার পছন্দ করতেন
  •   বিয়ের পর কপাল খুলল কোহলির, দ্বিগুন হচ্ছে সবার বেতন!
  •   ম্যাচ ফিক্সিং করে কত টাকা পেতে পারেন একজন ক্রিকেটার?
  •   যেসব বলিউড তারকাদের নেশা ছাড়া চলে না!
  •   পর্যাপ্ত ঘুম না হলে হতে পারে ৫টি বিপদ
  •   ১০০ বছর পর সমুদ্রগর্ভে বিলীন হবে এই শহরগুলি!
  •   এবার ৫ মিনিটে পাঁচ কোটি টাকা চাইলেন প্রিয়াঙ্কা!
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   মুক্ত আকাশে মুক্তির নিশান ওড়ার দিন
  •   মাঝপথ থেকে বাড়ি ফিরে ‘আপত্তিকর অবস্থায়’ পেলেন স্ত্রীকে
  •   মহিউদ্দিন চৌধুরীর জানাজা সম্পন্ন
  •   বাদ আসর লালদিঘিতে মহিউদ্দিন চৌধুরীর জানাজা
  •   রংপুরে ফিরছে ইভিএম
  •   চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী আর নেই
  •   জুস খেয়ে বের করে দিলেন স্বর্ণ!
  •   স্মার্টকার্ড কবে পাবেন, জানতে পারবেন এসএমএস করে
  •   ঢাবি ভর্তি: প্রশ্ন ফাঁস চক্রের হোতাসহ গ্রেপ্তার ১০
  •   বাংলাদেশে আকায়েদের জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায়নি: সিটিটিসি
  •   চাকরিবিধির আদেশ ২ জানুয়ারি
  •   পায়রা বন্দরে দু’টি টার্মিনাল চালু হবে ২০২০ সালের মধ্যে
  •   স্কুলছাত্রীর আঁকা বঙ্গবন্ধুর ছবি নিয়ে আলোড়ন
  •   দেশে দুই টাকার হিসাব ‘ডাক টাকা’
  •   মঙ্গলবার সকালে ঝলমলে রোদ