ওসিকে দেখে নেওয়ার হুমকি ড্রাইভারের

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-০১-১২ ০০:৩৪:৫৭

সলঙ্গা থানার ওসিকে এক অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের গাড়িচালকের ‘দেখে নেওয়ার’ হুমকির ঘটনায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুর রউফ সোমবার বিকালে সলঙ্গা থানা পরিদর্শনে গেলে তার সামনেই গাড়িচালক কনস্টেবল আলমগীর হোসেন আলম এ ঘটনার জন্ম দেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রউফ বলেন, ‘কনস্টেবলের ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণের বিষয়ে তদন্তসাপেক্ষে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’ বিডিনিউজ।

প্রত্যক্ষদর্শী সলঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান মতি ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুর রউফের গাড়ি থানা চত্বরে ঢোকার সময় ফটকে দায়িত্বরত কনস্টেবল সবুজ তা খেয়াল করতে না পারায় স্যালুট দেননি। এ সময় গাড়ি থেকে নেমে চালক আলমগীর কনস্টেবল সবুজের ওপর চড়াও হন। বিষয়টি ওসি আবদুর রফিকের নজরে পড়লে তিনি গাড়িচালককে থামাতে চেষ্টা করেন।

তখন গাড়িচালক উত্তেজিত হয়ে ওসিকে বলেন, ‘স্যার, আমাকে আপনি চেনেন না। আমি আইজির গাড়ি চালিয়েছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পিএস আমার আত্মীয়। আপনাদের সবাইকে দেখে নেওয়ার ক্ষমতা আমার আছে’। তিনি বলেন, পরে এএসআই মতিউর রহমান গাড়িচালক আলমকে শান্ত করে ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে নেন। ওসি আবদুর রফিক বলেন, ‘ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক।

ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বিষয়টি অবগত হয়েছেন। তারাই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন’। পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, ‘থানায় কোনো ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা গেলে তাকে সম্মান না জানানোর সুযোগ নেই। তবে সাদা পোশাকে থাকলে বা চিনতে না পারলে বিষয়টি ভিন্ন। আবার কর্তব্যরত সমমানের কাউকে বা ঊর্ধ্বতন কাউকে হুমকি দেবে, তাও শোভনীয় নয়। ঘটনাস্থলে প্রকৃতপক্ষে কী ঘটেছিল তা জানার চেষ্টা চলছে। জানার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ’

এ বিষয়ে কনস্টেবল আলমগীর হোসেন আলমের বক্তব্য জানা যায়নি।

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : ১৮১ বার

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   গোয়াইনঘাট থেকে বাসররাতে নিখোঁজ বর ৬ দিন পর উদ্ধার
  •   কোথায় হারালেন রাজিন সালেহ?
  •   সাভারে ‘জঙ্গি আস্তানা’য় অভিযান: পৌঁছেছে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল
  •   দক্ষিণ সুনামগঞ্জে মিনি স্টেডিয়াম নির্মান কাজের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন
  •   ‘যারা আমাদের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে আমরা তাদের কাছে কি হার মানবো?’
  •   ‘মূর্তি’ সরানো বিষয়টি আদালতের সিদ্ধান্ত: কাদের
  •   গণভবন এলাকায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু এসপিবিএন সদস্য
  •   ত্রিশালে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩
  •   ৫ দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে রাশিয়ায় হুইপ সেলিম উদ্দিন এমপি
  •   নিরবেই চলে গেল বুরুঙ্গা গণহত্যা দিবস
  •   সমাজ ও দেশের স্বার্থে সাহিত্যসেবীদের মূল্যায়ন করতে হবে: আসাদ উদ্দিন
  •   ছাত্রের পিছনে শিক্ষকের আসন, সর্বত্র সমালোচনার ঝড়
  •   প্রধানমন্ত্রীকে ধাক্কা মেরে জায়গা নিলেন ট্রাম্প!
  •   ছাড়ের নামে ধুন্ধুমার প্রতারণা, ‘বিশেষ সেলে’ বিক্রি হয় মানহীন বাতিল পণ্য
  •   বিয়ে নয়; উপযুক্ত সঙ্গী পেলে মা হতে চান শ্রুতি!
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   সাভারে ‘জঙ্গি আস্তানা’য় অভিযান: পৌঁছেছে বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল
  •   ‘যারা আমাদের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে আমরা তাদের কাছে কি হার মানবো?’
  •   গণভবন এলাকায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু এসপিবিএন সদস্য
  •   ত্রিশালে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩
  •   বর ৫ম শ্রেণির ছাত্র, কনে ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা!
  •   ভাস্কর্য অপসারণ: হেফাজতে ইসলামের দাবি আরও সুদূরপ্রসারী
  •   ভাস্কর্য পুনঃস্থাপন দাবি
  •   ভাস্কর্য সরানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ
  •   সরানো হলো সুপ্রিম কোর্টের ভাস্কর্য
  •   ঘুষের মামলায় শ্যামল কান্তি কারাগারে
  •   শ্যামল কান্তির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
  •   চাঁপাইনবাবগঞ্জে 'জঙ্গি আস্তানা' সন্দেহে ঘিরে অভিযান: আটক ৪
  •   আপনের মালিকে আবারোও ২৫ মে ব্যাখা দিতে হবে
  •   সুপ্রিম কোর্টও কব্জায় নিতে চায় সরকার: প্রধান বিচারপতি
  •   প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পাচ্ছেন সহকারী শিক্ষকরা