মাওলানা সাদকে নিয়ে কেন এত বিতর্ক

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৮-০১-১৩ ০০:৪৮:১২

দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজের অন্যতম শীর্ষ মুরব্বি মাওলানা সাদ কান্ধলভি। ‘তাবলিগ করা ছাড়া কেউ বেহেশতে যেতে পারবে না’ বলে মন্তব্যের পর তিনি বিতর্কিত হয়ে পড়েন। কয়েক বছর ধরে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমার মোনাজাত পরিচালনা করে আসছেন তিনি। এবারের ইজতেমায় তার অংশ নেওয়াকে কেন্দ্র করে গত জোড় ইজতেমা থেকে তাবলিগ জামাতের মুরব্বি ও ইজতেমা আয়োজকদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। তাবলিগ জামাতের একাংশের মুরব্বিরা বলছেন, মাওলানা সাদ বেশকিছু বিতর্কিত বক্তব্য দিয়েছেন যা  কোরআন-সুন্নাহ্ বিরোধী। তাই তাকে ইজতেমায় তারা অংশ নিতে দেবেন না। অবশেষে গতকাল সিদ্ধান্ত হয়েছে, মাওলানা সাদ ইজতেমায় অংশ নিচ্ছেন না। তিনি এ সময় কাকরাইল মসজিদে অবস্থান করবেন এবং সুবিধাজনক সময়ে দিল্লি ফিরে যাবেন।

মাওলানা সাদ কান্ধলভির অন্তত ২৬টি বক্তব্য নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। তাঁর এসব বিতর্কিত বক্তব্য প্রত্যাহার করার জন্য ভারতের দেওবন্দ মাদ্রাসা এবং বাংলাদেশ ও পাকিস্তানের শীর্ষ আলেমদের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়। কিন্তু তিনি সম্মত হননি। মাওলানা সাদের বিতর্কিত বক্তব্যের মধ্যে রয়েছে— ক্যামেরাযুক্ত মোবাইল রাখা হারাম। কেউ পকেটে ক্যামেরাযুক্ত মোবাইল রেখে নামাজ পড়লে তার নামাজ শুদ্ধ হবে না। মোবাইল ফোনে কোরআন শরিফ পড়া এবং শোনা প্রস্রাবের পাত্র থেকে দুধ পান করার মতো। যে উলামায়ে কেরাম ক্যামেরাযুক্ত মোবাইল রাখেন, তাঁরা উলামায়ে ছূ। এমন আলেমরা হলো গাধা।

মাওলানা সাদের মতে, কোরআন শরিফ শিখিয়ে যাঁরা বেতন গ্রহণ করেন, তাঁদের বেতন বেশ্যার উপার্জনের চেয়ে খারাপ। যে ইমাম এবং শিক্ষকরা বেতন গ্রহণ করেন, তাদের আগে বেশ্যারা জান্নাতে প্রবেশ করবে। মাদ্রাসাগুলোতে জাকাত না দেওয়া হোক। মাদ্রাসায় জাকাত দিলে জাকাত আদায় হবে না। রসুল (সা.)-এর পর কেবল তিনজনের বাই’আত পূর্ণতা পেয়েছেন, বাকি সবার বাই’আত অপূর্ণ। এই তিনজন হলেন— শাহ ইসমাঈল শহীদ (রহ.), মাওলানা ইলিয়াছ (রহ.) ও মাওলানা ইউসূফ (রহ.)। দাওয়াতের পথ নবীর পথ, তাছাউফের পথ নবীর পথ নয়। রসুল (সা.) দাওয়াত ইলাল্লাহ’র কারণে এশার নামাজ দেরিতে পড়েছেন। অর্থাৎ নামাজের চেয়ে দাওয়াতের গুরুত্ব বেশি।

মাওলানা সাদের আরও বিতর্কিত মন্তব্য হচ্ছে, হযরত মুসা (আ.) দাওয়াত ছেড়ে দিয়ে কিতাব আনতে চলে যাওয়ার কারণে পাঁচলক্ষ সত্তর হাজার লোক মুরতাদ হয়ে গেল। হযরত মূসা (আ.) কর্তৃক হারুন (আ.)কে নিজের স্থলাভিষিক্ত বানানো উচিত হয়নি। কিয়ামতের দিন আল্লাহ তা’আলা বান্দাকে জিজ্ঞাস করবেন, তা’লীমে বসেছিলে কি না, গাশত করেছিলে কি না? প্রত্যেক সাহাবী অপর সাহাবীর বিরুদ্ধাচরণ করছেন। আযান হল তাশকীল। নামায হল তারগীব। আর নামাযের পর আল্লাহর রাস্তায় বের হওয়া হল তারতীব।

মাওলানা সাদের বিতর্কিত বক্তব্যে আরও রয়েছে, হেদায়েতের সম্পর্ক যদি আল্লাহর হাতে হতো, তাহলে নবী পাঠাতেন না। কোরআন শরীফ বুঝে শুনে তেলাওয়াত করা ওয়াজিব। তরজমা না জেনে তলাওয়াত করলে ওয়াজিবের গুনাহ হবে। বড় গুনাহ-চুরি, যিনা। কিন্তু তার চাইতে বড় গুনাহ হলো খুরুজ না হওয়া।

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   বাড়িতে টাকার বিছানা, গুনতে গিয়ে রাত শেষ!
  •   ওসির দাপটে অসহায় সিনিয়র এএসপি, ইউএনও!
  •   প্রতিদিন ৩০ মিনিট হাঁটার উপকারিতা জানেন?
  •   প্রবাসীদের ভোটার তালিকাভূক্ত করার প্রক্রিয়া শুরু
  •   স্ত্রীর দাফনে এসে স্বামী যা করলেন...!
  •   ইতালীতে শুরু হচ্ছে 'মিস বাংলাদেশ ইতালী ২০১৮'
  •   গৃহকর্মীকে বিদায় দেওয়ার সময় সৌদি পরিবারের চোখে পানি!
  •   আলোচিত ‘ভুয়া খবরের’ জন্য ট্রাম্পের পুরস্কার ঘোষণা!
  •   'মা' হওয়ার পর জীবনই পাল্টে গেল সানি লিওনের!
  •   ইতিহাসের ৭ ভয়ঙ্কর নারী!
  •   বিলাসিতায় সবাইকে ছাড়িয়ে কিম জং উন
  •   শুধু 'পাকিস্তানি' হওয়ায় যত অপমান (ভিডিও)
  •   ৫৭ ধারায় সাংবাদিক ইশরাত ইভার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা
  •   জাকিরের বাসায় পুলিশি তল্লাশীতে জেলা ও মহানগর স্বেচ্চাসেবকদলের নিন্দা
  •   হাসিতে ঝরবে পেটের অতিরিক্ত চর্বি
  • সাম্প্রতিক জাতীয় খবর

  •   ওসির দাপটে অসহায় সিনিয়র এএসপি, ইউএনও!
  •   প্রবাসীদের ভোটার তালিকাভূক্ত করার প্রক্রিয়া শুরু
  •   ৫৭ ধারায় সাংবাদিক ইশরাত ইভার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা
  •   মেয়র আইভী অসুস্থ, হাসপাতালে ভর্তি
  •   মেয়র আইভী সিসিইউতে
  •   যশোর রোডে গাছ কাটায় হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা
  •   পাবিপ্রবিতে রসায়ন অলিম্পিয়াড শুরু শুক্রবার
  •   রাজধানীতে কভার্ডভ্যানের চাপায় ২ যুবকের মৃত্যু
  •   শীতার্ত বৃদ্ধার গায়ে নিজের জ্যাকেট খুলে পরিয়ে দিলেন পুলিশ সদস্য (ভিডিও)
  •   টাকায় লেখা ফোন নম্বরেই সর্বনাশ
  •   চাকরি পেলেন সেই পূর্ণিমা
  •   ঘরের ভেতর বাবা-মা ও দুই মেয়ের লাশ
  •   ৬ মাসের মধ্যে ডাকসু নির্বাচন দিতে হবে: হাইকোর্ট
  •   ঢাকা উত্তর সিটিতে উপনির্বাচন স্থগিত
  •   ৯ বছর আগে ‘গুম’ হওয়া জালাল আদালতে হাজির