কিশোরীটি হতে চেয়েছিল বিমানবালা, কিন্তু…

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-০৮-১২ ০০:৫০:২৭

পুলিশ সদস্যরা উত্তর প্রদেশের যে শ্যামল গ্রামটি ধরে হেঁটে যাচ্ছেন, সেখানেই রক্তাক্ত হয় স্বপ্নচারী এক কিশোরী।

ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের পূর্ব দিককার শহর বাল্লিয়া। সেই শহর থেকে সাত কিলোমিটার দূরের গ্রাম বাজাহা। সেখানকার একটি নির্মাণাধীন বাড়িতে বসে চোখের পানি সামলে নেহা দুবি তাঁর ১৭ বছর বয়সী ছোট মেয়ের একটা ইংরেজি ব্যাকরণ বই দেখাচ্ছিলেন। এই বইটিই খুব মনোযোগ দিয়ে পড়ত দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়া রাগিণী নামের কিশোরীটি।

কয়েক মাস ধরে বাজাহা গ্রামে উত্ত্যক্তের শিকার হচ্ছিল কিশোরীটি, যেটি  চরম রূপ নেয় গত মঙ্গলবার সকালে। ওই দিন পাঁচ কিশোর তাকে হত্যা করে বলে অভিযোগ উঠেছে, যাদের মূল হোতা গ্রামপ্রধানের ছেলে।

দ্বাদশ শ্রেণির পাঠ শেষে বড় কোনো শহরে যেতে চেয়েছিল রাগিণী। হতে চেয়েছিল বিমানবালা। এ জন্যই সে ইংরেজিতে কথা বলা ও লেখার ওপর খুব গুরুত্ব দিত। তার এমন ইচ্ছায় সায় ছিল পরিবারেরও।

রাগিণীর পরিবারের ভাষ্য, গ্রামপ্রধান কৃপা শঙ্কর তিওয়ারি প্রতাপশালী লোক। তাই তাঁর ছেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে পুলিশের কাছে যেতে সাহস পায়নি তারা। উল্টো তারা গ্রামপ্রধানের কাছেই ছেলে ও তার বন্ধুদের সীমা ছাড়ানোর বিচার চাইতে গিয়েছিল; কিন্তু বিচার আর হয়নি।

ঘটনার পর থেকেই গ্রামছাড়া শঙ্কর। কিশোরী হত্যা মামলায় প্রধান সন্দেহভাজন তাঁর ছেলে প্রিন্স তিওয়ারিসহ তিনজনকে এরই মধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপর দুজনকে ধরতে চলছে অভিযান। তাদের সবাই পরস্পরের বন্ধু।

‘রক্ষা (রাখি) বন্ধনের দিন সে যখন আবার উত্ত্যক্তের শিকার হয়েছিল, তখন আমরা শেষ পর্যন্ত পুলিশের কাছে যাওয়ার হুমকি দিয়েছিলাম। গ্রামপ্রধান হাতজোড় করে আরেকটা সুযোগ দেওয়ার জন্য আমাদের অনুরোধ করেছিল’, বলেন নেহা দুবি।

আক্ষেপ আরো আছে নেহার। বিচার পাওয়ার বদলে তাঁদের কপালে আঁকা হচ্ছে চরিত্র হননের কলঙ্কতিলক।

উত্তর প্রদেশ রাজ্য পুলিশের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মন দেওয়া-নেওয়ার ঝামেলার বলি হয়েছে রাগিণী। যদিও এর কোনো ভিত্তি নেই বলে দাবি করছে মেয়েটির পরিবার।

রাগিণীর বাবা জিতেন্দ্র কুমার দুবি বলেন, ‘পুলিশ কেন এমন করছে, তা বলতে পারব না। সম্ভবত তারা প্রকৃত অপরাধ আড়াল করতে চাইছে। আমি আসলেই এর বেশি কিছু বলতে পারব না।’

রাজ্য পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা আনন্দ কুমার বলেন, ‘প্রয়োজনে আমরা জাতীয় নিরাপত্তা আইন ফিরিয়ে আনব। এটা গ্রামের একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। এটা ভয়াবহ অপরাধ এবং আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই।’

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : ৪৯৩ বার

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   মাধবপুর প্রেসক্লাবের স্মরণিকা উন্মোচন
  •   সুশিক্ষা অর্জনে দেশ-জাতির কল্যাণে কাজ করা সম্ভব: বিচারপতি দস্তগীর
  •   পল্লী বিদ্যুতের ‘অনিয়ম’: দক্ষিণ সুরমায় ৩ ইউনিয়নবাসীর প্রতিবাদ সভা
  •   সিকৃবিতে সবজির উৎপাদনের কলাকৌশল বিষয়ে কৃষক প্রশিক্ষণ
  •   টানা বৃষ্টিতে শ্রীমঙ্গলে জনজীবন বিপর্যস্ত
  •   সিলেট আওয়ামীলীগের উদ্যোগে সদস্য নবায়ন কর্মসূচীতে জেলা শ্রমিকলীগ
  •   বড়লেখায় ছাত্র মজলিসের বার্ষিক সহযোগী সদস্য সমাবেশ সম্পন্ন
  •   জনপ্রিয় নেতাই পাবেন সিলেটে মেয়রের মনোনয়ন, বললেন ওবায়দুল কাদের
  •   আওয়ামী লীগের টার্গেট নারী ও নতুন ভোটার: সিলেটে ওবায়দুল কাদের
  •   রোহিঙ্গা সংকট সমাধান না করতে পারলে পদত্যাগ করুন: ড. ইউনূস
  •   টি-টোয়েন্টিতে তামিমের জায়গায় মুমিনুল
  •   যৌন হেনস্তার জন্য নারীরাও দায়ী, অভিনেত্রীর মন্তব্যে তোলপাড়
  •   ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি: ছাত্রলীগ নেতা বহিষ্কার
  •   চিকিৎসার জন্য লন্ডন গেলেন রাষ্ট্রপতি
  •   বাংলাদেশে আসছেন ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ
  • সাম্প্রতিক আন্তর্জাতিক খবর

  •   ১১ বছরেই সেরা 'তরুণ' বিজ্ঞানী!
  •   মদিনার কাছে শত শত রহস্যময় ‘দরজা’ কিসের?
  •   ব্লু-হোয়েল : ‘আমি না মরলে, ওরা আমার মাকে মেরে ফেলবে’
  •   মাঝ আকাশে প্রকাশ্যেই ঘনিষ্ঠ দুই সহযাত্রী, মিলল চরম শাস্তি
  •   হিরো আলমের সাথে এভ্রিল!
  •   তাজমহলও কি বাবরি মসজিদের পরিণতি ভোগ করতে যাচ্ছে?
  •   ভারতের যে গ্রামে প্রকাশ্যে চলে চুম্বন-অশ্লীলতা!
  •   রাম রহিমকেও ছাপিয়ে গেল আরেক 'ধর্ষক বাবা'
  •   গ্রাম প্রধানের বাড়িতে প্রবেশের অপরাধে বৃদ্ধকে চাটতে হল থুতু!
  •   সৌদি আরবে রহস্যময় প্রাচীন স্থাপনার সন্ধান
  •   অক্সফোর্ডের কমন রুম থেকেও বাদ সু চির নাম
  •   জেলে থেকেও ধর্ষিতাদের ছাড়ছে না রাম রহিম সিং
  •   দুবাইয়ের আকাশে অজানা আলো, কৌতুহল বিশ্বজুড়ে
  •   ধর্ষক রাম রহিমের রেকর্ড ভাঙতে যাচ্ছেন আদিত্যনাথ!
  •   হাইড্রোজেন বোমা বনাম পারমাণবিক বোমা