কিশোরীটি হতে চেয়েছিল বিমানবালা, কিন্তু…

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-০৮-১২ ০০:৫০:২৭

পুলিশ সদস্যরা উত্তর প্রদেশের যে শ্যামল গ্রামটি ধরে হেঁটে যাচ্ছেন, সেখানেই রক্তাক্ত হয় স্বপ্নচারী এক কিশোরী।

ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের পূর্ব দিককার শহর বাল্লিয়া। সেই শহর থেকে সাত কিলোমিটার দূরের গ্রাম বাজাহা। সেখানকার একটি নির্মাণাধীন বাড়িতে বসে চোখের পানি সামলে নেহা দুবি তাঁর ১৭ বছর বয়সী ছোট মেয়ের একটা ইংরেজি ব্যাকরণ বই দেখাচ্ছিলেন। এই বইটিই খুব মনোযোগ দিয়ে পড়ত দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়া রাগিণী নামের কিশোরীটি।

কয়েক মাস ধরে বাজাহা গ্রামে উত্ত্যক্তের শিকার হচ্ছিল কিশোরীটি, যেটি  চরম রূপ নেয় গত মঙ্গলবার সকালে। ওই দিন পাঁচ কিশোর তাকে হত্যা করে বলে অভিযোগ উঠেছে, যাদের মূল হোতা গ্রামপ্রধানের ছেলে।

দ্বাদশ শ্রেণির পাঠ শেষে বড় কোনো শহরে যেতে চেয়েছিল রাগিণী। হতে চেয়েছিল বিমানবালা। এ জন্যই সে ইংরেজিতে কথা বলা ও লেখার ওপর খুব গুরুত্ব দিত। তার এমন ইচ্ছায় সায় ছিল পরিবারেরও।

রাগিণীর পরিবারের ভাষ্য, গ্রামপ্রধান কৃপা শঙ্কর তিওয়ারি প্রতাপশালী লোক। তাই তাঁর ছেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে পুলিশের কাছে যেতে সাহস পায়নি তারা। উল্টো তারা গ্রামপ্রধানের কাছেই ছেলে ও তার বন্ধুদের সীমা ছাড়ানোর বিচার চাইতে গিয়েছিল; কিন্তু বিচার আর হয়নি।

ঘটনার পর থেকেই গ্রামছাড়া শঙ্কর। কিশোরী হত্যা মামলায় প্রধান সন্দেহভাজন তাঁর ছেলে প্রিন্স তিওয়ারিসহ তিনজনকে এরই মধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপর দুজনকে ধরতে চলছে অভিযান। তাদের সবাই পরস্পরের বন্ধু।

‘রক্ষা (রাখি) বন্ধনের দিন সে যখন আবার উত্ত্যক্তের শিকার হয়েছিল, তখন আমরা শেষ পর্যন্ত পুলিশের কাছে যাওয়ার হুমকি দিয়েছিলাম। গ্রামপ্রধান হাতজোড় করে আরেকটা সুযোগ দেওয়ার জন্য আমাদের অনুরোধ করেছিল’, বলেন নেহা দুবি।

আক্ষেপ আরো আছে নেহার। বিচার পাওয়ার বদলে তাঁদের কপালে আঁকা হচ্ছে চরিত্র হননের কলঙ্কতিলক।

উত্তর প্রদেশ রাজ্য পুলিশের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মন দেওয়া-নেওয়ার ঝামেলার বলি হয়েছে রাগিণী। যদিও এর কোনো ভিত্তি নেই বলে দাবি করছে মেয়েটির পরিবার।

রাগিণীর বাবা জিতেন্দ্র কুমার দুবি বলেন, ‘পুলিশ কেন এমন করছে, তা বলতে পারব না। সম্ভবত তারা প্রকৃত অপরাধ আড়াল করতে চাইছে। আমি আসলেই এর বেশি কিছু বলতে পারব না।’

রাজ্য পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা আনন্দ কুমার বলেন, ‘প্রয়োজনে আমরা জাতীয় নিরাপত্তা আইন ফিরিয়ে আনব। এটা গ্রামের একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। এটা ভয়াবহ অপরাধ এবং আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই।’

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   ভাষার ইতিহাস জানতে শহীদ মিনারে শিশুরা
  •   শহীদ দিবসে ফ্রেন্ডস পাওয়ার স্পোর্টিং ক্লাবের শ্রদ্ধাঞ্জলি
  •   চেতনায় ১৬, ২১ আর ২৬
  •   শাবিতে যথাযোগ্য মর্যাদায় শহীদ দিবস পালিত
  •   মাতৃভাষা দিবসে নিসচা সিলেট মহানগরের শ্রদ্ধাঞ্জলি
  •   মৌলভীবাজার সমিতি সিলেট এর শ্রদ্ধাঞ্জলি
  •   আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে শহীদ মিনারে অস্ট্রেলিয়া বিএনপির শ্রদ্ধাঞ্জলী
  •   ভাষা শহীদদের স্মৃতির প্রতি ইউএসও'র শ্রদ্ধা নিবেদন
  •   মাতৃভাষা আন্দোলন মুক্তিযুদ্ধের সংগ্রামকে চেতনা যুগিয়েছে: মাহমুদ উস সামাদ
  •   এমসি কলেজ রোভার স্কাউটে নতুন নেতৃত্ব
  •   সকল ধর্মের মানুষের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দেশকে এগিয়ে নেওয়া সম্ভব: নাজমানারা খানুম
  •   টাওয়ার হ্যাম‌লেট‌সে কনজার‌ভে‌টি‌ভের ম‌নোনয়ন পেলেন সিলেটী অা‌নোয়ারা
  •   বিশ্বের বুক থেকে প্রতিনিয়ত ভাষা হারিয়ে যাচ্ছে: ইউনেস্কো
  •   অযত্ন অবহেলায় আস্তিত্ব সংকটে ছাতকের পেপারমিল শহীদ মিনার
  •   বিয়ানীবাজারের দেউলগ্রামে শহীদ মিনারের উদ্বোধন
  • সাম্প্রতিক আন্তর্জাতিক খবর

  •   যে দেশের ৩২ কোটি মানুষের হাতে ২৯ কোটি অস্ত্র!
  •   বিমানে দুর্ব্যবহার, নামিয়ে দেওয়া হল নারীকে
  •   স্বপ্নে নবীর আদেশ পেয়েই ইমরান খানকে বিয়ে বুশরার!
  •   যে কারণে দেরিতে বিয়ে করছেন সিরিয়ার নারীরা!
  •   ডাকাতির পর গলায় ছুরি ঠেকিয়ে ৫০ নারীকে ধর্ষণ!
  •   স্ত্রীর হাতে স্টিয়ারিং, স্বামী কন্ডাক্টর
  •   প্রেমিকাকে খুন স্বামীর, ফ্রিজে লাশ রাখল স্ত্রী! অতঃপর...
  •   পুরুষের অনুমতি ছাড়াই এবার ব্যবসা করবে সৌদি নারীরা
  •   ইমরানের তৃতীয় স্ত্রী কে এই রহস্যময়ী নারী?
  •   বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ৪ বছর ধরে ধর্ষণ, অতঃপর...
  •   সেই বিকৃত পুরুষকে ধরিয়ে দিলেই পুরস্কার!
  •   স্কুলের বাথরুমে অদ্ভুত কাণ্ড বিজেপি নেতার!
  •   ফাঁকা বাড়িতে প্রেমিকার ফাঁদে পা দিয়ে চরম পরিণতি প্রেমিকের!
  •   জয়নব ধর্ষণ-হত্যা: অভিযুক্তকে চারবার মৃত্যুদণ্ড
  •   বিবাহ বিচ্ছেদ সেরে বিদেশ সফরে কানাডার প্রধানমন্ত্রী‌!