বিশ্বের ব্যয়বহুল ৫ সামরিক যান

সিলেটভিউ টুয়েন্টিফোর ডটকম, ২০১৭-০১-১০ ০০:০৪:১৪

বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল কিছু যানের মধ্যে শীর্ষস্থানে রয়েছে বিমানবাহী রণতরী, সাবমেরিন ও ব্যয়বহুল বিমান। দ্য রিচেস্ট'র প্রতিবেদন অনুযায়ী নিচে তুলে ধরা হলো তেমন ৫ টি ব্যয়বহুল সামরিক যানের তথ্য।

১. জেরাল্ড ফোর্ড
মার্কিন যুক্তরাস্ট্রের বিমানবাহী রণতরী ইউএসএস জেরাল্ড ফোর্ড নির্মাণে ১৩ বিলিয়ন ডলার ব্যয় করা হয়েছে। এটি ১,১০৬ ফুট লম্বা। এটি রাডারে ধরা পড়ে না। দুটি রানওয়ে রয়েছে এর ওপরে। জাহাজটিতে পাঁচ হাজার মানুষ কাজ করেন, তাদের মধ্যে চার হাজার মেরিন সেনা ও নাবিক। এর ওজন এক লাখ টন। ৮০টি বিমান ধারণক্ষমতা রয়েছে এটির। 

২. কুইন এলিজাবেথ
যুক্তরাজ্যের বিমানবাহী রণতরী এইচএমএস কুইন এলিজাবেথ। এটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৯.৩ বিলিয়ন ডলার। এর দৈর্ঘ্য ৯১৮ ফুট। ৬৫ হাজার টন ওজনের এ বিমানবাহী রণতরীটি ১০ হাজার মাইল চলতে পারে কোনো জ্বালানি না নিয়েই। জাহাজটির চারটি শক্তিশালী জেনারেটর রয়েছে। এগুলো একসাথে চালু করা হলে এটি দ্রুত গতিতে চলতে এবং পর্যাপ্ত বিদ্যুৎ উৎপাদন করতে সক্ষম হয়। 

৩. ডিডিজি ১০০০ জুমওয়াল্ট-ক্লাস ডেস্ট্রয়ার
প্রাথমিকভাবে ৩.৮ বিলিয়ন ডলার ব্যয় ধরা হলেও পরবর্তীতে নানা অস্ত্রে সজ্জিত করতে গিয়ে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ডিডিজি ১০০০ জুমওয়াল্ট-ক্লাস ডেস্ট্রয়ারের নির্মাণব্যয় দাঁড়িয়েছে সাত বিলিয়ন ডলার। আর এতে যোগ করা হয়েছে বিশ্বখ্যাত রেইলগানও। এছাড়া এটি শত্রুর রাডারেও সহজে ধরা পড়বে না। 

৪. এইচএমএস অ্যাসটিউট
৫.৫ বিলিয়ন ডলারের এ সাবমেরিনটি একটি নিমিজ ক্লাস সাবমেরিন। এটি ৩০ নট বেগে চলতে পারে। এর টর্পেডো ৩০ মাইল দূর থেকেও শত্রুপক্ষের জাহাজ ডুবিয়ে দিতে সক্ষম। এর মিসাইলের পাল্লা এক হাজার মাইল। এছাড়া নানা আধুনিক যন্ত্রপাতিও রয়েছে এতে। 

৫. চার্লস ডি গাউলি
চার বিলিয়ন ডলার ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়েছে ফ্রান্সের এ বিমানবাহী রণতরিটি। এটি বাস্তবে ১৯৮৬ সালে কমিশনপ্রাপ্ত হয়। তবে নানা কারণে এটি কাজ শুরু করতে পারেনি। এরপর নানা সমস্যা কাটিয়ে সম্প্রতি পারমাণবিক শক্তিচালিত এ জাহাজটি কাজ শুরু করেছে। 

সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : ২৮৩ বার

শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

সর্বশেষ খবর

  •   সিলেটে ২০ শুল্ক কর্মকর্তাকে ‘বদলি’
  •   কমলগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ: নারীসহ আহত ৬
  •   লিডিং ইউনিভার্সিটিতে চলছে সোশ্যাল সার্ভিস ক্লাবের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতা
  •   কমলগঞ্জে মণিপুরী মুসলিম টিচার্স ফোরামের মতবনিমিয় সভা
  •   এশিয়ান আরচ্যারী চ্যাম্পিয়নশীপ ঢাকা-২০১৭ উপলক্ষে সিলেটে র‌্যালী
  •   ঈদ-এ মিলাদুন্নবী উপলক্ষে আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত
  •   ‘বিদ্যুতের দামে জনজীবনে প্রভাব পড়বে না’
  •   ‘আওয়ামী লীগ আবারও সরকার গঠন করবে’
  •   শহীদ জিয়ার ছোট ভাইয়ের ইন্তেকালে সিলেট জেলা বিএনপির শোক
  •   সিলেটে বিপুল পরিমাণ অবৈধ সিগারেট জব্দ
  •   আজ থেকে বিপিএল চট্টগ্রামে
  •   বারী সিদ্দিকীর জানাজা অনুষ্ঠিত
  •   যুক্তরাজ্যে বদরুজ্জামান সেলিমের সমর্থনে মতবিনিময়
  •   দক্ষিণ সুরমায় শশুড়বাড়ি থেকে গৃহবধূ নিখোঁজ
  •   বলিউডে পুরুষেরাও যৌন হয়রানির শিকার
  • সাম্প্রতিক ফিচার খবর

  •   জেনে নিন জন্মতারিখ কী বলে আপনার সম্পর্কে
  •   কাদের-ফখরুলদের কীভাবে জানতেন বঙ্গবন্ধু?
  •   প্রিয় শিক্ষামন্ত্রী! প্লিজ, অপ্রিয় হলেও শুনুন
  •   ব্রি‌টিশ বাংলা‌দেশী প্রজ‌ন্মের চো‌খে জ‌ঙ্গিবাদ
  •   ‘সিলেটে বিএনপি কোনো ফ্যাক্টর ছিলো না’
  •   মাঝ সমুদ্রে রহস্যময় প্রাচীন শহর
  •   খামার করে ভাগ্যের চাকা ঘুরে গেছে নাজমুলের
  •   বাবা নেই! মা মুমূর্ষু!
  •   মধ্যপ্রাচ্য কি ধ্বংসের শেষ প্রান্তে?
  •   নামগুলো হজম করতে হবে
  •   আওয়ামী লীগ কি তার অতীত ভুলে গেছে?
  •   স্মৃতি অমলিন : নুর উদ্দিন লোদি
  •   কিয়ামতে সুন্দর চরিত্রের অধিকারীরা হবেন রসুল (সা.)-এর প্রিয়
  •   একটি বিয়েতে রাষ্ট্রপতির স্ত্রী রাশিদা হামিদ
  •   ভিসির হাতে ঝাড়ু : শিক্ষকদের লাথি-ঘুষি